মার্কিন আরেক ব্যাংকে বিটকয়েনে লেনদেন শুরু

ক্রিপ্টোকারেন্সির মুদ্রা মানের পতনের মধ্যেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আরও একটি ব্যাংক বিটকয়েন মাধ্যমের লেনদেন শুরু করেছে।

বুধবার (১৯ মে) ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির খবরে জানানো হয়েছে, ওয়েলস ফার্গো নামের মার্কিন ওই ব্যাংকটি ‘ভার্চুয়াল কয়েন’র মাধ্যমে পেশাদারিত্বের সঙ্গে তহবিল ব্যবস্থাপনায় দক্ষতা দেখাতে চায়। তবে, এক্ষেত্রে উপযুক্ত গ্রাহক নির্বাচন করা একটি বড় চ্যালেঞ্জ বলে মানছেন ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনায় থাকা কর্তারা।

ওয়েলস ফার্গো’র এই এই সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে সম্প্রতি চীনা সরকার ক্রিপ্টোকারেন্সির লেনদেনে নতুন করে প্রতিবন্ধকতা আরোপ করার ঘোষণা দিয়েছে এবং সেই ঘোষণার পরপরই ভার্চুয়াল এই মুদ্রার মানের পতন হয়েছে ২২ শতাংশ।

উত্থান-পতনে ঊর্ধ্বমুখী ক্রিপ্টোকারেন্সির মূল্যমান গত তিন মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমে আসে বুধবার (১৯ মে)। এদিন, এক একটি ক্রিপ্টোকারেন্সির দাম নেমে দাঁড়ায় ৩৪ হাজার ডলারে।

দ্য ইনভেস্টমেন্ট রেশনাল ফর ক্রিপ্টোকারেন্সিজ শীর্ষক এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ডিজিটাল মুদ্রাকে বিনিয়োগের ভালো বিকল্প মাধ্যম হিসেবে ভাবছে ওয়েলস ফার্গো ইনভেস্টমেন্ট ইনস্টিটিউট।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘ওয়েলস ফার্গো ইনভেস্টমেন্ট ইনস্টিটিউট বিশ্বাস করে সম্পদ হিসেবে ক্রিপ্টোকারেন্সি বেশ স্থিতিশীল ও বাস্তব। তবে, যত দক্ষতার সঙ্গেই এই ক্রিপ্টোকারেন্সির ব্যবস্থাপনা করা হোক না কেন এই মাধ্যমে বিনিয়োগের জন্য যোগ্য বিনিয়োগকারীকে নির্বাচন করা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ ও গুরুত্বপূর্ণ একটি ইস্যু হয়ে থাকবে।

উচ্চ ঝুঁকি মেনেই গত মার্চে বিনিয়োগ ব্যাংক মরগান স্টানলি প্রথম মার্কিন কোন আর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিটকয়েনের মাধ্যমে গ্রাহকের তহবিল ব্যবস্থাপনা শুরু করে।

গত এপ্রিল জেপি মরগানও জানিয়েছে, তারাও নির্বাচিত গ্রাহকদের জন্য ভার্চুয়াল মুদ্রার মাধ্যমে লেনদেনের প্রস্তুতি শুরু করেছে।